• কবিতা,  মযলুম মুসাফির,  সাহিত্য

    আমার সংসার

    আমার সংসার মযলুম মুসাফির   যেদিন আমার এ সংসারে আসলো ছেলের মায়ে, অসীম পথের যাত্রা কিছু শিখলো কঠিন ঘায়ে। বাপের বাড়ি শেখেনি কাজ, মায়ের স্নেহের ধন, এখন সেটা করতে গেলে ঘটায় অঘটন। পানি টানা রান্না করা কাপড় ধোয়ার কাজ, করছে বটে, কপালে তার ভাঁজের পরে ভাঁজ। সেদিন আমায় নাক ফুলিয়ে বলছে অনেক রাতে, এই সংসার এমন করে কোন পাগলে পাতে! আমি বুঝি আসলে তার নাই সংসার জ্ঞান, তাইতো আমার কানের কাছে ঘ্যানর ঘ্যানর ঘ্যান। একটুখানি বকা ঝকায় গুটিয়ে ফেলে ব্যাগ, আমি ভাবি এবার বুঝি করবে আমায় ত্যাগ। আবার তারে আদর করে কাছে টেনে আনি, সাথে সাথেই সব অভিমান ভোলে অভিমানী।…

  • দয়ার-সাগর
    কবিতা,  মযলুম মুসাফির,  সাহিত্য

    দয়ার সাগর, ফরিয়াদ, মরণ

    দয়ার সাগর মযলুম মুসাফির   আল্লাহ তুমি দয়ার সাগর দয়ার নাইকো শেষ, আমি যে অধম এত গুণ আমি কেমনে করিব পেশ। সাত সাগরের পানি কালি হলে আরো আছে যত নদী, কলম করিয়া জগতের গাছ লিখি যদি নিরবধি। শেষ হবেনাকো গুণকীর্তন যতদিন আছি ভবে, পরতে পরতে তোমার গুণের কতকিছু বাদ রবে। তোমার তুলনা তুমি শুধু খোদা সকল রাজার রাজা, কত পাপ করি তবু এ নাদান পায়নাকো কোনো সাজা। দয়ার সাগরে ডুবে আছি খোদা দয়ার সাগরে ভাসি, আমার লাগিয়া বিচারের দিন রেখ দয়া রাশি রাশি।   ফরিয়াদ আসমান থেকে আবু বকরের ফের দাও খোদা আজ, সবে দেখেনিকো কেমন ছিলেন মহান দিল দরাজ।…

  • তোমার-প্রতিক্ষায়
    কবিতা,  মযলুম মুসাফির,  সাহিত্য

    তোমার প্রতিক্ষায়, তুমি যদি আমায় ভালোবাসো

    তোমার প্রতিক্ষায় মযলুম মুসাফির (ছদ্মনাম)    প্রহর কাটে না তাই চেয়ে থাকি ঐ দূরপথ পানে, কত ভালোবাসা লালন করেছি মনের মধ্যিখানে।   কত ফুল আমি খোঁপায় পড়েছি কত যে হাসনাহেনা, তোমার বার্তা দিয়েছে আমায় নীল দরিয়ার ফেনা।   তোমায় বরণ করবো আমি সুমধুর গানে গানে, কিছু রঙ আমি ধার চেয়েছিনু আকাশের কানে কানে।   কতকিছু চাই লাজে মরে যাই আমি যে অবলা বালা, গেঁথেছি বসিয়া যতন করিয়া বকুল ফুলের মালা।   নীরবের মাঝে সরব হৃদয়, হবে যে মাল্যদান, আকাশ আলোকে অপলক চোখে পাখিরা গাহিবে গান।   তোমার তরেতে নির্ঘুম কাটে কত মিশকালো রাত, হৃদয়ে তুলেছে ফেনিল তুফান প্রবাল ঝঞ্ঝাবাত।  …

  • বিয়ে-মানে-কি?
    কবিতা,  মযলুম মুসাফির,  সাহিত্য

    বিয়ে মানে কি?

    বিয়ে মানে কি? মযলুম মুসাফির (ছদ্মনাম)   বিয়ে মানে কি তুচ্ছ কথায় হঠাৎ গালাগালি? পাড়াপড়শি তাই শুনিয়া দুই হাতে দেয় তালি। দুষ্ট মতি ভ্রষ্ট অতি গালি দেয় শালি মাগি, একজন খুন হতেই পারে বউ যদি হয় রাগী। বিয়ে অর্থ কি বউয়ের প্রতি শুধুই অবহেলা? ঘুরে-ফিরে তো রাতের বেলায় তারই সাথে খেলা। কোকিল ফেলে কাকের সঙ্গে কেনরে মাখামাখি? নিশিকালে তুই প্যাঁচার কেন করিস ডাকাডাকি? চ্যাটিং করে সেই সে নাদান যারা চিটিংবাজ, সুখের ঘরে আগুন দেওয়া পাপিষ্ঠদের কাজ। বিয়ে মানে কি চার দেওয়ালে বউয়ের কন্ঠ রোধ? আহা পরকীয়ায় বাধা দিলে চরম প্রতিশোধ? সবল যখন দূর্বলেরে মারে ভীষণ ঘুষি, মনে হইবে সব কিছুতেই…

  • কত-শত-বিল
    কবিতা,  মযলুম মুসাফির,  সাহিত্য

    কত শত বিল

    কত শত বিল মযলুম মুসাফির   ব্যস্ত শহরে কঠোর কহরে যদি বসি নিরজনে গাজনা বিলের যত আছে মাঠ ভেসে ওঠে আঁখি কোণে। কালিদহে কোন কালি দেখি নাই দেখেছি বানের পানি, হাতিগাড়ার ঐ হাতি ইতিহাস কতটুকু বল জানি? বাঁশতালুকেতে আগাছা বোঝাই বাঁশ নাই সেথা কোন, পদ্মবিলের পদ্মের কথা দাদার মুখেই শোন। জেলেপথে আজ ধান ও পেঁয়াজ মাছ ধরে নাকো জেলে, মনের কোনায় সুখ খুঁজে পাই আজও সেথায় গেলে। মুন্সিডাঙ্গিতে কত খেলিয়াছি গরু খেতো মাঠে চড়ে, হইচই করে মেতেছি খেলায় সারাটি দিবস ভরে। বিন্নিডাঙ্গিতে দাদি শুয়ে আছে গেছি কত একা একা, অনেক বছর হয়নি কো আর দাদির কবর দেখা। ডহার বিলের শেষ…

  • বিল-গাজনার-চিল
    কবিতা,  মযলুম মুসাফির,  সাহিত্য

    বিল গাজনার চিল

    বিল গাজনার চিল মযলুম মুসাফির (ছদ্মনাম)    আমি ভাই এক বিল গাজনার পাখি, গোপন কথাটি বুকের ভিতরে রাখি। বাসা বেঁধে করি বাস গাজনায় বারোমাস পাখা মেলে মেলে দু’চারটি মাছ ধরি এমনি করেই শূন্য উদর ভরি।   হাটখালী যাই, যাই যে সৈয়দপুর, সাগতা,বাদাই যদিও বহুতদূর দেখি সব ঘুরে ঘুরে আমার দৃষ্টি জুড়ে দুলাই,উলাট আর রহে খয়রান, সমস্ত গাঁ’র আমি এক মেহমান।   কভু যাই আমি বোনকোলা ও দুরিয়া, বদনপুর,শাড়িরভিটা দেখি ঘুরিয়া আমার ইচ্ছে যত মিটাই মনের মত কামালপুরের হাটের গাছেতে বসে, দেখে নেই কেবা মুরগীর ছানা পোষে।   মনে নাই ঠিক মাসটি হয়তো মাঘ, হাকিমপুরটি ফেলিয়া ভাদরভাগ। সেই গাঁয়ে কিছুক্ষণ বসে…

error: Content is protected !!