• শহিদ-আব্দুস-সাত্তার
    কৃতি ব্যক্তিবর্গ,  ভাষা সৈনিক

    শহিদ আব্দুস সাত্তার

    ঊনসত্তরের গণ-আন্দোলনে শহিদ আব্দুস সাত্তার আমিরুল ইসলাম রাঙা   বাঙালি জাতির শত সহস্র বছরের রাজনৈতিক ইতিহাসে বলার মতো তিনটি ঘটনা উল্লেখ করা হয়। একটি বাহান্নর ভাষা আন্দোলন, দ্বিতীয়টি ঊনসত্তরের গণ-আন্দোলন এবং তৃতীয়টি হলো একাত্তরের মহান মুক্তিযুদ্ধ। এর আগে বাঙালি জাতির ইতিহাস শুধু পরাজয় এবং পরাধীনতার। বিগত সাত দশকে বাঙালির প্রথম বিজয় হয়েছিল ১৯৫২ খ্রিষ্টাব্দের ভাষা আন্দোলনে। আটচল্লিশ থেকে বাহান্ন পর্যন্ত ভাষা আন্দোলনে শত শত সংগ্রামী জেল-জুলুম নির্যাতনের শিকার হয়ে পরিশেষে বাহান্নের একুশে ফেব্রুয়ারি সালাম, রফিক, জব্বার, বরকত, শফিকদের জীবন বির্সজন দিয়ে প্রতিষ্ঠিত হয় বাঙালির বাংলা ভাষা। সেই থেকে বাঙালির হৃদয়ে স্থান করে নেয়, আমার ভাইয়ের রক্তে রাঙানো একুশে ফেব্রুয়ারি আমি…

  • আনোয়ারুল-হক
    কৃতি ব্যক্তিবর্গ,  নিশ্চিন্তপুর,  ভাষা সৈনিক,  সাতবাড়িয়া,  সাংস্কৃতিক ব্যক্তিত্ব

    আনোয়ারুল হক

    পাবনা প্রেসক্লাবের সাবেক সভাপতি ও সম্পাদক, ভাষা সংগ্রামী ও বিশিষ্ট সাংবাদিক আনোয়ারুল হক ছিলেন সৎ ও আদর্শ সাংবাদিকতার অন্যতম পথিকৃত। জন্ম: সাংবাদিক ও ভাষা সংগ্রামী আনোয়ারুল হক ১৯৩৮ খ্রিষ্টাব্দের ১২ই ফেব্রুয়ারি পাবনা জেলার সুজানগর উপজেলার অন্তর্গত সাতবাড়িয়া ইউনিয়নের নিশ্চিন্তপুর গ্রামে জন্মগ্রহণ করেন। পারিবারিক জীবন: পিতা তাজউদ্দিন আহমেদ (বিএ) ব্রিটিশ আমলে কলকাতা করপোরেশনের ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তা ছিলেন। মা আমিরুন নেছা ছিলেন গৃহিণী। সাবেক ছাত্রনেতা নজমুল হক নান্নু এবং পাবনা জেলা পরিষদের সাবেক প্রশাসক এম সাইদুল হক চুন্নু তাঁর ছোটো দুই ভাই । তিনি এক ছেলে ও দুই মেয়ের জনক। ছেলে সুশোভন হক টুটুল পাবনার সাবেক  ক্রিকেটার। শিক্ষা জীবন: আনোয়ারুল হক নিশ্চিন্তপুর সরকারি…

  • কমরেড-প্রসাদ-রায়
    কৃতি ব্যক্তিবর্গ,  তাঁতিবন্দ (গ্রাম),  তাঁতিবন্ধ,  ভাষা সৈনিক,  মুক্তিযোদ্ধা

    কমরেড প্রসাদ রায়

    কমরেড প্রসাদ রায় (১৯২৮-১৯৯৬ খ্রি.) ছিলেন একজন ভাষাসৈনিক ও মুক্তিযুদ্ধের সংগঠক। জন্ম: ভাষাসৈনিক ও মুক্তিযুদ্ধের সংগঠক প্রসাদ রায় ১৯২৮ সালের ৫ আগস্ট, পাবনার প্রতাপ ভবনে জন্মগ্রহণ করেন। তাঁর পৈতৃক নিবাস সুজানগর উপজেলার তাঁতীবন্দ ইউনিয়নের তাঁতীবন্দ গ্রামে।  পারিবারিক জীবন: বাবা প্রফুল্ল চন্দ্র রায় এবং মা শবসনা রায়। পাঁচ ভাইয়ের মধ্যে প্রসাদ রায় ছিলেন সর্বকনিষ্ঠ। কমরেড প্রসাদ রায়ের বড় ৪ ভাই যথাক্রমে প্রবীর রায়, প্রদীপ রায়, প্রণব রায় এবং প্রণিত রায়।  স্ত্রী মীরা রায়। মেয়ে বৃত্বা রায় দীপা এবং ছেলে অঞ্জন রায়। শিক্ষা জীবন: প্রসাদ রায় প্রাথমিক শিক্ষা সমাপ্ত করে ১৯৪২ সালে পাবনার রাধানগর মজুমদার একাডেমীতে ভর্তি হন। অষ্টম শ্রেণিতে পড়াকালীন ১৯৪৫…

error: Content is protected !!