শ্রদ্ধাঞ্জলি
কবিতা,  তাহমিনা খাতুন,  সাহিত্য

শ্রদ্ধাঞ্জলি, সময় কি হইবে তোমার

শ্রদ্ধাঞ্জলি

তাহমিনা খাতুন

 

এই দিনে, আজিকার এই ক্ষণে, অনেক বছর আগে!
তোমরা করে গেছ আত্মদান!
ছিনে এনেছিলে ভাষার তরে অযুত সন্মান!
সহনিকো তোমরা মায়ের ভাষার এতটুকু অপমান,
অকাতরে রাজপথে ঢেলে দিয়েছিল তাই আপন প্রাণ!
শাসকের রক্তচক্ষু তোমাদের কাছে, পায়নিকো কোন দাম!
জগত তুলেছে অতুল শিখরে, তোমাদের সব নাম!

 

আপন বুকের শোণিতে রাঙায়েছো কঠিন সে রাজপথ,
আজও তাই মোরা স্মরণ করি যে, সালাম রফিক বরকত!
ভাষার তরে তে আর কোন জাতি, দেয়নি বুকের খুন,
তোমাদের সে খুনে বুঝি তাই, রেঙ্গে উঠেছিল আটই ফাল্গুন!
শফিক, শফিউর, ওহিউল্লাহ আরও কত, অজানা নাম!
তোমাদের তরে আজিও বাঙ্গালী তাই, জানায় লাখো সালাম!

 

শিমুল, পলাশ, কৃষ্ণচূড়া বুঝি তাই আজিও কাঁদিয়া যায়,
তোমাদের তরে স্মৃতির মিনার, আজিও জাগিয়া রয়!

তোমাদের ত্যাগে, একুশ লভিয়াছে ভাষা দিবসের স্বীকৃতি,
তোমাদের স্মরি তাই বিশ্ব মানব, গাহিছে অমর গীতি!

 

যে ইতিহাস গড়িয়া গিয়াছ, উঁচায়ে বুকের ছাতি,
তোমাদের সে দানের মহিমা, স্মরিছে সকল জাতি!
তোমাদের ত্যাগে দুখিনী বর্ণ, হইয়াছে গরবিনী !
তোমাদের আবেগ লভি ধন্য হইয়াছে, এ বঙ্গ জননী!
যত দিন রহিবে বাংলা ভাষা, এই ধরণীর পরে,
রাশি রাশি ফুল ঝরিয়া পড়িবে,
স্মৃতির মিনার ভরে!

 

জেনেভা, সুইজাল্যান্ড
২১ ফেব্রুয়ারি, ২০২২

 

সময় কি হইবে তোমার

সময় কি হইবে তোমার, খানিক দাঁড়াবার?
হেরিতে চাহ কি রুপ সুধা, সুন্দর এ ধরণীর?
দিয়াছেন যাহা বিধাতা, ভালবাসি সৃষ্টিরে তাঁর!

শুনিয়াছ কি কভু, বৃষ্টির রিমঝিম গান, টিনের চালায় তোমার?
কিংবা শুনিয়াছ টুপটাপ সঙ্গীত তার, লতায় পাতায়?
লইয়াছ কি কভু খানিক বিশ্রাম, শুনিতে নদী আর সাগরের গান?
শুনিয়াছ কি কভু?
কুলু কুলু রবে ছুটিয়া চলা পাহাড়ি ঝর্ণার অবিরাম তান?
খানিক থামিয়া নিরালায়?

 

অবিরত ছুটিয়া চলার গতি, কভু কি থামিবে তোমার?
হেরিতে অরুণ রবির রঙে রাঙা, ভোরের আকাশ?
নতুবা সাঁঝের গোধুলি লগন, দিগন্ত রেখায়?

দেখিতে চাহ কি ভোরের শিউলি, অথবা রাতের রজনীগন্ধা?
লভিবে কি ঘ্রাণ, কাঁঠালি চাঁপার, ভরিয়া পরান?

খানিক থামিয়া দেখিতে চাহ কি?
রঙ্গন ঝোপে ছোট্ট টুনী পুচ্ছ দুলায়!
নাচের ছন্দ তুলি!
মনটি ভরিয়া শোন!
ভোরের দোয়েলের গান! যাহা সে গাহে, আপন খেয়ালে!

ক্ষণেকের তরে থামি বকুলের তলায়!

কুড়াইয়া লও ঝরা ফুলগুলি, গাঁথিতে মালা বুনো লতায়!

ক্ষান্ত দাও অর্থহীন এ ছুটে চলায়!
হও তুমি প্রকৃতির সন্তান!
অনুভব, প্রাণ ভরি প্রকৃতির দান!
ব্যর্থ না হয় যেন মানব জীবন!
হয়ে উদাসীন এসব সুষমায়!

 

জেনেভা, সুইজারল্যান্ড
১৯ ফেব্রুয়ারি, ২০২২

 

আরও পড়ুন কবিতা-

অগ্নিশ্বর

হেমন্তের বিকেল

প্রেমের পদ্য

 

ঘুরে আসুন আমাদের ফেসবুক পেইজে

শ্রদ্ধাঞ্জলি

Facebook Comments Box

তাহমিনা খাতুন ছড়া, কবিতা, ভ্রমণ কাহিনী, নারীর অধিকার নিয়ে বিভিন্ন জাতীয় দৈনিকে নিয়মিত কলাম লিখছেন। পেশায় একজন আইনজীবী।তিনি ১৯৫৭ খ্রিস্টাব্দের ১ মার্চ পাবনা জেলার সুজানগর উপজেলার অন্তর্গত আহম্মদপুর ইউনিয়নের দ্বাড়িয়াপুর গ্রামে জন্মগ্রহণ করেন।

error: Content is protected !!