বিল-গাজনার-মাঠে
কবিতা,  জাহাঙ্গীর পানু,  সাহিত্য

বিল গাজনার মাঠে

বিল গাজনার মাঠে

জাহাঙ্গীর পানু

 

আমি দেখেছি কত রং বিল গাজনার  মাঠে
যেখানে কৃষকের স্বপ্ন হাতছানি দিয়ে ডাকে।
দেখেছি সোনালী ধানক্ষেত দিগন্তে জোড়া
পেঁয়াজের কচি দানার আঁটি স্বযত্নে মোড়া।

 

সবুজ ধানক্ষেতে কৃষকের স্বপ্নের লুকোচুরি
পাটের কচি পাতায় হাসে বসিয়া মুখোমুখি।
পাটের নিড়ানি দিয়ে রাখে স্রষ্টার পানে হাত
শক্ত কাণ্ডের উপর দাড়িয়ে অদুর ভবিষ্যৎ।

 

মনে পড়ে শৈশব কৈশরের কত রকম স্মৃতি
সারি সারি বসে থাকা পেঁয়াজ রোপনের ছবি।
পানি সেচে শুকিয়ে কোপায় জমি মনে খুব বল
পেঁয়াজের কচি ডগায় হাসে সারা বছরের সম্বল।

 

পৌষ মাসের হাড়কাঁপানো শীতের সকাল
কুয়াশার চাদরে ঢাকা পরে মাঠের ফসল।
চৈত্র মাসে পেঁয়াজ ওঠে ভরে আসে গাড়ি
কাচারি ঘরের চাতাল ভরে গৃহস্থের বাড়ি।

 

বর্ষায় বাদল নামে বন্যা আসে বিলে
কৃষকেরা ধোয় পাট বন্যার জলে।
রোদে শুকিয়ে পাট ছড়িয়ে আঁশটে
বেচাকেনা করে তারা গঞ্জের হাটে।

 

জেলেদের বের জালে মাছ পরে ধরা
কেউ আবার ধরে মাছ পাতিয়া খরা।
কৈ বাইন টেংরা পুঁটি কত রকম মাছ
সৌখিন জেলেরা ধরে সকাল সাঁঝ।

 

পদ্ম শাপলা ঢোল কলমি কচুরির ফুল ফোটে
শাপলা ফুলের ডাটায় মানুষের খাদ্য জোটে।
বর্ষাকালে বিলে ফোটে হরেক রকম ফুল।
খয়রান ব্রীজে দেখা যায মানুষের হুলস্থুল।

 

এপার ওপার পারাপারের গয়নার নাও
স্যালো মেশিন লাগিয়ে ঘোরে কত গাঁও।
মুখে হাসি নতুন জামা সাথে মিষ্টির হাঁড়ি
পাল তোলা নৌকায় বর চলে শশুর বাড়ি।

 

শীতের শিশিরে ভেজা সকালের মাঠ
বিকেলে তেমাথায় বসে গ্রামের হাট।
নিশিতে বেজে ওঠে রাখালের বাঁশি
মনের মাঝে সুর, মুখে গৃহস্থের হাসি।

 

সারাদিন জেলের দল মাছ ধরে বিলে
অবসর বেলা যায় নৌকা বাইচ দেখে।
কতরকম ছবি ভাসে মোদের হৃদয় পটে
অর্থের চারণভূমি বিল গাজনার মাঠে।

 

ঘুরে আসুন আমাদের ফেসবুক পেইজে

Facebook Comments Box

প্রকৌশলী আলতাব হোসেন, সাহিত্য সংস্কৃতি বিকাশ এবং সমাজ উন্নয়নমূলক কর্মকাণ্ডে নিবেদিত অলাভজনক ও অরাজনৈতিক সংগঠন ‘আমাদের সুজানগর’-এর প্রতিষ্ঠাতা এবং সাধারণ সম্পাদক। তিনি ‘আমাদের সুজানগর’ ওয়েব ম্যাগাজিনের সম্পাদক ও প্রকাশক। এছাড়া ‘অন্তরের কথা’ লাইভ অনুষ্ঠানের সার্বিক তত্ত্বাবধায়ক। সুজানগর উপজেলার ইতিহাস, ঐতিহ্য, সাহিত্য, শিক্ষা, মুক্তিযুদ্ধ, কৃতি ব্যক্তিবর্গ ইত্যাদি বিষয়ে তথ্য সংগ্রহ ও সংরক্ষণ করতে ভালোবাসেন। বিএসসি ইন টেক্সটাইল ইঞ্জিনিয়ারিং সম্পন্ন করে বর্তমানে একটি স্বনামধন্য ওয়াশিং প্লান্টের রিসার্চ এন্ড ডেভেলপমেন্ট সেকশনে কর্মরত আছেন। তিনি ১৯৯২ খ্রিষ্টাব্দের ১৫ই জুন পাবনা জেলার সুজানগর উপজেলার অন্তর্গত হাটখালি ইউনিয়নের সাগতা গ্রামে জন্মগ্রহণ করেন।

error: Content is protected !!