প্রতীক্ষায়-আছি
কবিতা,  কে এম আশরাফুল ইসলাম,  সাহিত্য

প্রতীক্ষায় আছি, সখী প্রেম কারে কয়

প্রতীক্ষায় আছি

কে এম আশরাফুল ইসলাম

 

প্রত্যাশার কাননে

প্রতীক্ষার ভুবনে ধৈর্যের তীর্থনীড়ে,

তোমারই স্মরণে

পথ চেয়ে আছি রঙিন মান্‌সের ভিড়ে।

আসবে বলে

সেই চলে গেলে প্রত্যয়ী হিয়াতে আমি,

নয়ন মেলে

বসে আছি মায়াবী গমনের পথ চুমি।

এতটুকু ব্যতয়

ক্ষণিকেও নাহি হয় পরাণের সকল দ্বারে,

দিয়ে পরিচয়

রাখিয়াছি সেথায় প্রেম নিবন্ধনে চিরতরে!

এ মন প্রাণ

করে পেরেশান মহাসিন্ধুর তাণ্ডবি কল্লোলে,

স্মৃতি অম্লান

মননে নয়নে শ্রীবুদ্ধ হয়েছি বয়সী বটমূলে।

সাধু সন্যাসি

হয়ে বারোমাসী একাগ্র ধ্যানেতে সমর্পিত মন,

স্মরি অহর্নিশি

ছায়া কায়াতে নিমগ্নতায় প্রকম্পিত বৃন্দাবন!

গোঁফ দাড়ি

অযত্নে মৃত্তিকায় পড়ি বটের শাখা মূলের মত,

মেহমানদারি

অকৃত্রিম বন্ধনে আপনারে হারাই অবিরত।

মম আঁখি

বেদনার রাখী নায়াগ্রা জলপ্রপাতের ধারায়,

হইয়া সাকী

হিমালয় ঘামে তবু হায় না ফিরালো তাহায়!

অজ্ঞাত বাসরে

প্রণয় অবসরে অতীতের চারণ ধামে,

মেঘের ওপরে

নীলিমার চাদরে কে বেঁধেছিল ভূমে,

সেই ছবিখান

হিয়াতে তুফান আনিয়া করে লয়,

তুমিই প্রিয়প্রাণ

আমারই অবোধে অবাধে কথা কয়!

মুদিয়া নয়ন

বুনে যাই স্বপন মরু তৃষা করে লীলা,

করিয়া চয়ন

লতিকারা প্রেমে প্রেমিকের চেলা।

শীর্ণ তনু

শিশিরের রেণু মম অর্পিত কায়ায় হাসে,

তপ্ত ভানু

প্রখর কিরণে আরো বিশুষ্ক করিতে আসে!

অক্ষত আশা

দেহের সর্বনাশা প্রকৃতির আহবানে ক্ষীণ,

হায় ভালোবাসা

তোমারই প্রতীক্ষায় মাটির মমতায় ‘লীন!

আছি সমাহিত

প্রেম পীড়িত নির্জন সমাধির বুকে,

তবু প্রীত

অশান্ত প্রতীক্ষায় চেয়েছি শুধুই তোমাকে!

 

সখী প্রেম কারে কয়

রঙিন কল্পনা

নিঠুর ছলনা মনেতে করিলে বাস,

জীবন যন্ত্রণা

উপহারে হাসে অযাচিত পরিহাস।

প্রাণ ভরে হাসো

কাছে এসে বসো দাও ভালোবাসা,

পাখি হয়ে ভাসো

শ্যেনের ডানায় করিয়া সর্বনাশা।

নিথর দেহ

দেখিয়া কেহ সান্ত্বনার ফুলঝুরি,

দিলে কি গেহ

হয় সুরভিত বিহনে সেই তরি?

নিপুণ অভিনয়

জীবনের ক্ষয় লেলিহান অনির্বাণ,

করো পরাজয়

ভাঙিয়া পাঁজর অর্পিত হিয়াখান।

তব আঁখি

মরীচিকায় ডাকি কুহেলিকার আর্শি,

তাতে দেখি

অপাঠ্য ভাষা রহস্য বালিকার হাসি,

হরিয়া প্রাণ

হানিয়া তুফান প্রশান্ত সিন্ধুতে ঢেউ,

করো নির্বাণ

সজীব বাগান অজ্ঞাত রয় প্রিয় সেও!

বর্ণবিহারি

হইয়া তরী বুকেতে নাও তুলে,

মনোহারি

পার্লারে পার্লারে সাজো নকলে!

এই অর্বাচীন

চেনায় অচিন না চিনিয়া চারিণী,

ক্লিষ্ট রঙিন

ধূলিতে মলিন সঙ্গী লোচনের পানি!

সুচতুরা

পাষাণ প্রাণহরা কসাইয়ের মমতায়,

করো গৃহহারা

ছলনার জালে কৃত্রিম ভালোবাসায়।

এ মন

কাঁচের মতন ভেঙে ভেঙে করো নাশ,

স্বপন

চিতার ছাই, উড়ায় ঝড়ো বাতাস!

সখী

বেদনার রাখী প্রেম কারে কয়,

পাখি

যাযাবর আমি প্রেম ছলনাময়!

 

আরও পড়ুন কবিতা-
শ্বাশত বাণী
স্মৃতিছায়া
প্রেমের পদ্য
প্রকৃতিতে হবো লীন
ঘুরে আসুন আমাদের অফিসিয়াল ফেসবুক পেইজে

প্রতীক্ষায় আছি

Facebook Comments Box

ঘটনাবহুল জীবনের অধিকারী কে এম আশরাফুল ইসলাম একাধারে একজন কবি, ঔপন্যাসিক, নাট্যকার, প্রাবন্ধিক, গল্পকার ও গীতিকার। ছড়াগ্রন্থ, কাব্যগ্রন্থ, গল্পগ্রন্থ, নাটক, গান, প্রবন্ধ ও উপন্যাস প্রভৃতি বিষয়ে লেখকের মোট ৭৮টি পাণ্ডুলিপি অপ্রকাশিত রয়েছে।তিনি পাবনা জেলার সুজানগর উপজেলার সাগরকান্দি ইউনিয়নের  তালিমনগর গ্রামে ১৯৬৯ খ্রিস্টাব্দে জন্মগ্রহণ করেন। 

error: Content is protected !!