কবিতা,  মযলুম মুসাফির,  সাহিত্য

আমার সংসার

আমার সংসার

মযলুম মুসাফির

 

যেদিন আমার এ সংসারে আসলো ছেলের মায়ে,
অসীম পথের যাত্রা কিছু শিখলো কঠিন ঘায়ে।
বাপের বাড়ি শেখেনি কাজ, মায়ের স্নেহের ধন,
এখন সেটা করতে গেলে ঘটায় অঘটন।

পানি টানা রান্না করা কাপড় ধোয়ার কাজ,
করছে বটে, কপালে তার ভাঁজের পরে ভাঁজ।
সেদিন আমায় নাক ফুলিয়ে বলছে অনেক রাতে,
এই সংসার এমন করে কোন পাগলে পাতে!

আমি বুঝি আসলে তার নাই সংসার জ্ঞান,
তাইতো আমার কানের কাছে ঘ্যানর ঘ্যানর ঘ্যান।
একটুখানি বকা ঝকায় গুটিয়ে ফেলে ব্যাগ,
আমি ভাবি এবার বুঝি করবে আমায় ত্যাগ।

আবার তারে আদর করে কাছে টেনে আনি,
সাথে সাথেই সব অভিমান ভোলে অভিমানী।
রান্নার কাজ খুব ঝামেলা চুলার কাছে গেলে,
শাক-সবজি কাটতে বসে আঙুল কেটে ফেলে।

আবার ওষুধ কিনে আনি কাটায় মারি পটি,
আমি নাকি সবচেয়ে খারাপ তাহার পরেই বটি।
আবার ছুটি বটি নিয়ে কোথায় কর্মকার,
এই বটিতেই খেল সকল হাতের চর্ম তার।

কাজের মাঝে মরে লাজে আছে অনেক গুণ,
লাগবে চিনি যেথায়, সেথা দিয়ে বসে নুন।
বাজার থেকে কিনে আনি আপেল আতা, লিচু,
সেসব নাকি সস্তা পচা বাজে সকল কিছু।

সবচেয়ে ভালো আঙুর কিনি সাদা আরো কালো,
তবু বলে আমার চেয়ে শালার গুলোই ভালো।
হঠাৎ যদি শখের বসে খায় সকালে বাসি,
বলবে আমায় তোমার গরম, খাবে এসব দাসী।

কোথায় যে ভুল লুকিয়ে আছে বুঝি নাকো ছাই,
সেকেন্ড ম্যারেজ করে সেটা শুধরে নিতে চাই।
ঝুট-ঝামেলা ভাবে আমায় কথায় কথার ঝাড়ি,
বেরিয়ে গেল মনের কথা সইতে না আর পারি।

আমি বলি ডোন্ট মাইন্ড আই এ্যাম ভেরি সরি,
এটাই আমার প্রথম বিয়ে দু’বার যখন করি,
সুদ-আসলে পুষিয়ে নিব করবো না আর ভুল,
কথা শুনে যমের মতো ধরলো আমার চুল।

আমার ঘরে আসবে কে সে? কোন সর্বনাশী?
আমি বলি তখন তারে দিও সকল বাসি।
বলছে কথা অনেক জোরে আমি মরি ডরে,
আমায় ফেলে নতুন করে আনবি সতিন ঘরে?

শেষ রক্ষা হবে না তোর যদি ভাঙিস ঘর,
নতুন বটির এক কোপেতে ফেলে দিব ধর।
সতিন তোরে পাবে নাকো যাবি যমের মুখে,
আমি শুধু সাহস যোগাই থুথু মেরে বুকে।

বলছি তুমি চুল ছাড় না দিচ্ছি ছেলের ডাক,
মেয়ে বলে বাবার মাথায় পড়বে এবার টাক।
ছুটে গেলাম কোন মতে পেয়ে গেলাম পাড়,
তোমার সাথে রসিকতা করবো নাকো আর।

তুমিই আমার প্রথম শেষ, তুমিই আমার জান,
তোমার বটির এক কোপেতে হবো না দুইখান।
কে বলেছে তোমায় দাসী তুমি তো রাজরানি,
চাইলে দিব চন্দ্রটারে আকাশ থেকে আনি।

তোমার লাগি বিছিয়ে দিব হৃদয় সিংহাসন,
তুমি ছাড়া সেই খানে নাই অন্য কোন জন।
শুনে আমার এসব কথা ফিক করে দেয় হেসে,
পুরান কথাই নতুন করে বলছে ভালোবেসে।

এ সংসারে নিত্য লীলা চলছে অহরহ,
কারো কাছে খেলা শুধুই কারো অর্থবহ।
এরই মাঝে ছিটকে পড়ে কতো নর-নারী,
আবার যারা আছে ধরে হয়েছে সংসারী।

আরও পড়ুন কবিতা-
তিতাস নদীর পাড়ে
কবি ও কবিতা
বাংলার কৃষক
স্বর্গসুখ

 

ঘুরে আসুন আমাদের অফিসিয়াল ইউটিউব চ্যানেলফেসবুক পেইজে

আমার সংসার

Facebook Comments Box

মযলুম মুসাফির মূলত একজন কবি।প্রকাশিত কাব্যগ্রন্থ: ঘটক বাবু।তিনি ১৯৭৩ সালের ১৭ আগস্ট, পাবনা জেলার সুজানগর উপজেলার অন্তর্গত মানিকহাট ইউনিয়নের বোনকোলা গ্রামের এক সম্ভ্রান্ত মুসলিম পরিবারে জন্মগ্রহণ করেন।

error: Content is protected !!