কবিতা,  ফজলুল হক,  সাহিত্য

স্বপ্নহীন

স্বপ্নহীন

ফজলুল হক

 

নিভে যাওয়ার অভিলাষে
কেনো মিথ্যে প্রদীপ জ্বালো,
সরে আসার ফাঁদ পেতে
কেনোইবা অলীক গল্পের পাণ্ডুলিপি লিখো?

 

এ কেমন মিছে অভিনয়!
জীবনের ভাষাগুলো পরিষ্কার
দুর্লভ স্মৃতির মতো,
বিষণ্নতায় ছেয়ে গেছে ভালোবাসার অনুরঁজন,
স্বপ্নের রশি টেনে ক্লান্তপ্রায় ফেলে আসা দীঘল সময়।

 

ঘুমহীন ঘুমচোখ স্বপ্নহীন রাত
স্মৃতির বাসর ভেঙে ডুবে গেলো অভিমানী নীল চাঁদ,
কে কখন শূন্যতায় ডুবে যায়
নেই যেনো কারো তার দায়ভার।

 

এ আঁধার যদি কেটে যায়
রুপালি আলোর আলিঙ্গনে,
সবুজ ঘাস ভিজবে আবার হেমন্তের শিশিরজলে।

 

তুমিও তো শিশিরজল
যাকে খুশি ভিজিয়ে দাও রবি’র জেগে ওঠার আগেই
অতঃপর আচানক নিজেকে গুটিয়ে ফেলো শামুকের স্বভাবজাত প্রত্যয়ে।

 

অলির গুনগুন ধ্বনি মহুয়ার বনে
শুধু নেই কোনো ব্যাকুলতা প্রেমহীন প্রেমে;
নিজেকে বদলাতে ভিন্ন সুরে কেউ গেয়ে যায় জীবনের গান
আমি শিকড়ে ঘ্রাণ খুঁজি।।

 

ঘুরে আসুন আমাদের ফেসবুক পেইজে

Facebook Comments Box

প্রকৌশলী আলতাব হোসেন, সাহিত্য সংস্কৃতি বিকাশ এবং সমাজ উন্নয়নমূলক কর্মকাণ্ডে নিবেদিত অলাভজনক ও অরাজনৈতিক সংগঠন ‘আমাদের সুজানগর’-এর প্রতিষ্ঠাতা এবং সাধারণ সম্পাদক। তিনি ‘আমাদের সুজানগর’ ওয়েব ম্যাগাজিনের সম্পাদক ও প্রকাশক। এছাড়া ‘অন্তরের কথা’ লাইভ অনুষ্ঠানের সার্বিক তত্ত্বাবধায়ক। সুজানগর উপজেলার ইতিহাস, ঐতিহ্য, সাহিত্য, শিক্ষা, মুক্তিযুদ্ধ, কৃতি ব্যক্তিবর্গ ইত্যাদি বিষয়ে তথ্য সংগ্রহ ও সংরক্ষণ করতে ভালোবাসেন। বিএসসি ইন টেক্সটাইল ইঞ্জিনিয়ারিং সম্পন্ন করে বর্তমানে একটি স্বনামধন্য ওয়াশিং প্লান্টের রিসার্চ এন্ড ডেভেলপমেন্ট সেকশনে কর্মরত আছেন। তিনি ১৯৯২ খ্রিষ্টাব্দের ১৫ই জুন পাবনা জেলার সুজানগর উপজেলার অন্তর্গত হাটখালি ইউনিয়নের সাগতা গ্রামে জন্মগ্রহণ করেন।

error: Content is protected !!