তোমরাই-সফল
কবিতা,  জিন্নাত আরা রোজী,  সাহিত্য

তোমরাই সফল, এ কোন পৃথিবী

তোমরাই সফল

জিন্নাত আরা রোজী

 

হে তরুণ, তোমাদের স্বপ্নের মেঘ ভেসে বেড়ায়!
সেই স্বপ্নকে কাজে লাগাও,
তোমরা কঠোর হাতে ধরতে পারবে এ দেশের হাল।
তোমাদের আছে শক্তি, সাহস, দৃঢ় মনোবল,
আছে শ্যামল সবুজে ভরা স্বাধীন বাংলাদেশ ;
তোমরা আগামীর কর্ণধার,
তোমাদের দমিয়ে রাখবে এমন সাধ্য আছে কার?

তোমরা এদেশের হাতিয়ার,
দেশ গড়ার প্রত্যয়ে তোমরা অনড়,
শৃঙ্খল ভেঙ্গে হয়ে উঠো সুতীক্ষ্ণ হাতিয়ার।
তোমাদের রক্তাক্ত প্রতিবাদে রাজনীতির
ময়দান হয়েছে সফল,
তোমাদের আলোয় আলোকিত এদেশ,
তোমাদের হাসিতে হাসে যেন এ দেশ।

তোমরা মায়ের কোলের সাহসী সূর্য সন্তান,
তোমরা বাবার আদর্শের অমলিন হাসি,
কৃষকের শস্যপূর্ণ ফসলের মাঠ।
তাই মোহময় চশমায় ঢেকে রেখো না দু-চোখ ;
চারিদিকে বিলিয়ে দাও তোমাদের অর্জনের খতিয়ান।
তোমরা মুখ থুবরে পড়লে চলবে না এদেশ,
তোমাদের স্বপ্নের সূচনায় ভরে উঠুক এদেশের অলিগলি।
তোমাদের সততা আর শ্রমের নির্মল ছোঁয়ায়
সজীব হয়ে উঠুক সোনার বাংলাদেশ।

আরও পড়ুন জিন্নাত আরা রোজীর কবিতা-
অবহেলার বৃত্তে
হেমন্তের বিকেল
প্রকৃতির মাঝে সুখ খুঁজি

 

এ কোন পৃথিবী

মৃত্যুর মিছিল যেন থামছেই না!
পথে-ঘাটে, হাসপাতালে, বাড়িতে,
অলিতে-গলিতে সংক্রমণের ছড়াছড়ি,
পুড়ছে শ্মশানে মানুষ, কবরে আর্তনাদ,
এ কোন বিশ্ব চিনতে ভীষণ কষ্ট হয়!
সব কিছু স্থবির, শুধু হাহাকার,
ঘরে ঘরে লাশের মিছিল, শোকের মাতম;
চেনা মানুষগুলো এখন বড়ই অচেনা।

অসহায়ত্বের কাঠগড়ায় দাড়িয়ে গোটা বিশ্ব,
মানুষের মনুষ্যত্ব নিয়ে প্রশ্ন উঠছে!
কিন্ত কেন? সবাই তো বাঁচতে চায়।
মৃত্যুভয়ে প্রতিটি মানুষ জড়োসড়ো,
পারছে না আপনজনের পাশে দাঁড়াতে,
পারছে না শেষ কাজে শরিক হতে।

বুকভরা কান্না নিয়ে বেঁচে থাকার নাম কি জীবন?
প্রিয়জন যদি চলেই যাবে,তবে এত স্বপ্ন,
তবে কেন মায়া মমতায় জড়ানো?
কত স্বপ্ন অকালেই ঝরে যাচ্ছে,
ঢেউয়ের পরে ঢেউ আসছে নতুন আঘাত হানতে!
বুকের গহিন ক্ষত যেন বেড়েই চলছে;
আশ্বিনের উদাসীন মেঘ সর্বদা বয়েই চলেছে!

কবে ফিরবে নতুন বিশ্ব পুরোনো রূপে?
জাগবে মানুষের অদম্য স্বপ্ন, সাহস?
কবে মাথাচারা দিয়ে উঠবে পশু -পাখি,ফল-ফুল, তরুলতা?
কবে শিশুরা একসাথে গাইবে স্বপ্নজাগানিয়া গান?
হে করোনা আর আগুন জ্বালাস না কারো বুকে,
থেমে যা পোড়া শ্মশানের মত।
সেই কষ্টের পক্ষে সাফাই গাইবে না কেউ…

আরও পড়ুন কবিতা-
অবচেতন মন
ভালোবাসি তোমায়
একজন পূজারি ও প্রণয়কাল

 

ঘুরে আসুন আমাদের সুজানগর এর অফিসিয়াল ইউটিউব চ্যানেলফেসবুক পেইজে

তোমরাই সফল

Facebook Comments Box

প্রকৌশলী আলতাব হোসেন, সাহিত্য সংস্কৃতি বিকাশ এবং সমাজ উন্নয়নমূলক কর্মকাণ্ডে নিবেদিত অলাভজনক ও অরাজনৈতিক সংগঠন ‘আমাদের সুজানগর’-এর প্রতিষ্ঠাতা এবং সাধারণ সম্পাদক। তিনি ‘আমাদের সুজানগর’ ওয়েব ম্যাগাজিনের সম্পাদক ও প্রকাশক। এছাড়া ‘অন্তরের কথা’ লাইভ অনুষ্ঠানের সার্বিক তত্ত্বাবধায়ক। সুজানগর উপজেলার ইতিহাস, ঐতিহ্য, সাহিত্য, শিক্ষা, মুক্তিযুদ্ধ, কৃতি ব্যক্তিবর্গ ইত্যাদি বিষয়ে তথ্য সংগ্রহ ও সংরক্ষণ করতে ভালোবাসেন। বিএসসি ইন টেক্সটাইল ইঞ্জিনিয়ারিং সম্পন্ন করে বর্তমানে একটি স্বনামধন্য ওয়াশিং প্লান্টের রিসার্চ এন্ড ডেভেলপমেন্ট সেকশনে কর্মরত আছেন। তিনি ১৯৯২ খ্রিষ্টাব্দের ১৫ই জুন পাবনা জেলার সুজানগর উপজেলার অন্তর্গত হাটখালি ইউনিয়নের সাগতা গ্রামে জন্মগ্রহণ করেন।

error: Content is protected !!