কবিতা,  পথিক জামান,  সাহিত্য

জ্বালাও তোমার অগ্নি মশাল, তুমিতো তুমি-ই

জ্বালাও তোমার অগ্নি মশাল

পথিক জামান

 

আমার দু’চোখে বিন্দু বিন্দু জল
কখনো তা গড়িয়ে পড়ে
নিঃশব্দে নীরবে।
সর্বদা অন্তরে তীব্র দহন
প্রশ্ন রাখি, এই কি স্বাধীন দেশ?
কোথায় তোমার স্বকীয়তা?
কোথায় তোমার জাতীয়তাবোধ?
আত্মমর্যাদাবোধ ধুলোয় ভূলুণ্ঠিত আজ,
সে হুঁশও হারিয়ে বসে আছি
বহুকাল আগে।

 

কী আর আছে তোমার আমার।
গর্বিত জাতির এ-কি করুণ অবক্ষয়।
এমন তোষণ নীতি
শোষণের অশনি সংকেত
ভয়ে তাই কেঁপে ওঠে বুক,
আবার ঘৃণাও ক্ষোভের অগ্নি শিখা
পুড়িয়ে মারে কোটি জনতা
কিন্তু আমরা আজ বড় অসহায়
জেগে ওঠো বীরজনতা
জ্বালাও তোমার অগ্নি মশাল
বিপথগামী পথযাত্রীকে
টেনে আনো আলোর পথে।
শোনাও তাদের অতীত ইতিহাস,
শোনাও তাদের গোলাভরা ধান,
পুকুর ভরা মাছের রোমাঞ্চকর
কালের উপাখ্যান।
অন্যের পদলেহন নয় তোমার
লাল ইতিহাস।

 

তুমিতো তুমি-ই

শিশির ভেজা ভোরের আলোয়
তোমাকে দেখলাম আজ অন্য রকম সুন্দর,
যা আগে দেখা হয়নি
কোনো বসন্তের শেষ বিকেলেও।

অদ্ভুত সুন্দর! তুমিতো তুমিই।

 

কোনো উপমা দিয়ে তোমাকে
ছোটো করতে চাই না একদম।
বৈশাখে তোমাকে দেখেছি অন্যরূপে,
শরতেও দেখেছি তোমায়,
হেমন্তে তুমি উদাস বাউল কবি।

 

মাছরাঙার সতর্ক দৃষ্টি নিবদ্ধ নির্মল জলাশয়ে,
শিশুদের ভোর হতে কোলাহল
কৃষকের ছুটে চলা মাঠের পানে
গরু ছাগলের অবাধ বিচরণ
সবুজ মাঠের প্রান্ত সীমায়।

 

রাতের আকাশে তারাদের
আলোর মিছিল,
কালীদাসের মেঘদুতের অশান্ত ছুটাছুটি,
দখিনা বাতাসের কোমল পরশ
মদিরতা আনে এ তাপিত বুকে।

 

ঝড়ের পূর্বাভাস

বাংলার আকাশে আবার
ঝড়ের পূর্বাভাস পাচ্ছি,
এক রকম ভারি ভারি ভাব
বাতাসে বহমান।

 

প্রদীপটা নিভে যেতে পারে
বৈশাখী ঝড়ের প্রচণ্ডতায়।
ছন্দের যে দোলা ছিলো মনে
অনেকটাই থমকে গেছে
অজানা শঙ্কায়।

 

বুদ্ধি বিনাশ ঘটেছে
অথবা ভীমরতিতে ধরেছে সবার।
ঝড়ের সংহারী রূপ দেখেছো নিশ্চয়,
সমাজকে চূর্ণ বিচূর্ণ করে ছাড়ে
প্রচণ্ড ক্ষিপ্ততায়।

 

হিংসা বিদ্বেষ ছেড়ে
একই সমতলে এসে
সুখের স্বপ্ন দেখাতে পারো
লক্ষকোটি শান্তিকামী
বঞ্চিত জনতার।

 

 

আরও পড়ুন কবিতা-
প্রকৃতিতে হবো লীন
সাবাশ বাংলাদেশ
সময়ের দাবি
বসন্ত কোকিল
স্মৃতি ছায়া
হেমন্তের বিকেল
হেমন্তের বিকেল

 

ঘুরে আসুন আমাদের ফেসবুক পেইজে

জ্বালাও তোমার অগ্নি মশাল

Facebook Comments Box

প্রকৌশলী মো. আলতাব হোসেন, সাহিত্য সংস্কৃতি এবং সমাজ উন্নয়ন কর্মকাণ্ডে নিবেদিত অলাভজনক ও অরাজনৈতিক সংগঠন "আমাদের সুজানগর"-এর প্রতিষ্ঠাতা এবং "আমাদের সুজানগর" ওয়েব ম্যাগাজিনের সম্পাদক ও প্রকাশক। সুজানগর উপজেলার ইতিহাস, ঐতিহ্য, সাহিত্য, শিক্ষা, মুক্তিযুদ্ধ, কৃতি ব্যক্তিবর্গ ইত্যাদি বিষয়ে তথ্য সংগ্রহ ও সংরক্ষণ করতে ভালোবাসেন। বিএসসি ইন টেক্সটাইল ইঞ্জিনিয়ারিং সম্পন্ন করে বর্তমানে একটি স্বনামধন্য ওয়াশিং প্লান্টের রিসার্চ এন্ড ডেভেলপমেন্ট সেকশনে কর্মরত আছেন। তিনি ১৯৯২ সালের ১৫ জুন পাবনা জেলার সুজানগর উপজেলার অন্তর্গত হাটখালী ইউনিয়নের সাগতা গ্রামে জন্মগ্রহণ করেন।

error: Content is protected !!